মলয় দে নদীয়া :-ভয়াবহ নৌকাডুবি চার বছর অতিক্রান্ত। গত ২০১৬ ১৫ই মে অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে নদীয়া জেলার শান্তিপুর নৃসিংহ পুর গঙ্গার ঘাট। ঘটনার সূত্রপাত 14 ই মে পূর্ব বর্ধমানের কালনাতে ভবা পাগলার মেলা দেখতে কয়েক হাজার মানুষ শান্তিপুরের ঘাট পার হয়ে কালনা তে যায়। ফেরার পথে যাত্রী বেশি হয়ে যাওয়াতে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে ভুটভুটি নৌকা। প্রাণ হারায় শান্তিপুরের বেশকিছু মানুষ। এখনো আতঙ্ক রয়েছে নদীয়ার শান্তিপুরের মানুষের মধ্যে। তবে এবারের লকডাউন জেরে বন্ধ হয়েছে পূর্ব বর্ধমানের ভবা পাগলার মেলা। সেই দিনের স্মৃতি আজও চোখে-মুখে আতঙ্কের ছাপ গঙ্গার পার্শ্ববর্তী এলাকার সাধারণ মানুষজনের। তারা দাবি করেন গঙ্গা দিয়ে অনেক জল গড়িয়ে গেছে বিগত দিন আর কখনো যেন না ফেরে। ঐদিনের দুর্ঘটনার ফলে বদলে গিয়েছে কানলা ঘাট এর চিত্র এখন ভুটভুটি নয় যাত্রী পারাপার চলে লঞ্চের মাধ্যমে। প্রত্যেক যাত্রী কে লাইফ জ্যাকেট পরিয়ে তবেই চলে পারাপার।


বিধানসভার ভোট হয়ে গেছে, বেরোয়নি ফলাফল এমনই এক সময়ে সেদিন শুধু কলকাতা থেকে রাত 12 টায় আবেগপ্রবণ অরিন্দম ভট্টাচার্য্য পৌঁছেছিলেন ঘাটে। উত্তেজিত জনতার লঞ্চে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার আইনি মামলা, বিধায়ক হওয়া সত্ত্বেও সমাস শান্তিপুর ঢুকতে না পারার বেদনা, তৎকালীন স্থানীয় প্রশাসনের প্রহার সবটাই জড়িত ছিল এই ঘটনার সাথে। তারপর থেকে প্রতি বছর এই দিনে বিধায়ক অরিন্দম ভট্টাচার্য পৌঁছান মৃতদের শ্রদ্ধা জানাতে। আজও জ্বালালেন মোমবাতি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here